শিক্ষা মন্ত্রণালয় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২৫ মে ২০১৬

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর সম্পর্কিত তথ্য

মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি)

তৎকালীন জনশিক্ষা দপ্তরকে পুণর্গঠন করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর প্রতিষ্ঠিত হয়। এ অধিদপ্তরের প্রধান কাজ হল দেশের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষাকে পরিচালনা ও নিয়ন্ত্রণ এবং শিক্ষা নীতির বাস্তবায়ন করা। বর্তমানে নিন্মলিখিত শিক্ষা সম্পর্কিত প্রতিষ্ঠান ও কার্যালয়সমূহকে এ অধিদপ্তর দ্বারা পরিচালনা ও নিয়ন্ত্রনের জন্য ন্যাস্ত করা হয়েছে।

  • ২৭৪ টি সরকারি মহাবিদ্যালয় ( ডিগ্রি কলেজ ৮৯টি, অনার্স কলেজ ১০০টি, অনার্স ও মাস্টার্স কলেজ ৯০টি এবং ৩৩ টি উচ্চ মাধ্যমিক মহাবিদ্যালয়)
  • ১৬টি সরকারি কর্মাশিয়াল ইনস্টিটিউট
  • 14টি সরকারি শিক্ষক প্রশিক্ষণ মহাবিদ্যালয়
  • ৪টি সরকারি আলিয়া মাদরাসা
  • ৫টি উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষক প্রশিক্ষণ মহাবিদ্যালয়
  • ১টি বাংলাদেশ মাদরাসা শিক্ষক প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট
  • ৯টি আঞ্চলিক পরিচালকের কার্যালয়
  • ৬৪টি জেলা শিক্ষা অফিস
  • ৪৮৯টি উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস
  • ২৫টি থানা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস (প্রকল্প)
  • ৩৩৫টি সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়
  • ২৩৬৩টি বেসরকারি মহাবিদ্যালয়
  • ১৬১০৯টি বেসরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়
  • ৭৫৯৮টি বেসকারি মাদরাসা।

অধিদপ্তরের কার্যাবলী/উদ্দেশ্য

  • মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা ক্ষেত্রে শিক্ষানীতির বাস্তবায়ন করা।
  • দেশের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা স্তরের সাধারণ শিক্ষার সাথে সম্পৃক্ত নীতি প্রণয়নে প্রশাসনিক মন্ত্রণালয়কে সাহায্য করা।
  • শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহের শিক্ষা কার্যক্রমকে তদারকি করা।
  • উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নির্মাণ কার্যক্রম গ্রহন, বাস্তবায়ন এবং তদারকি করা।
  • দেশের সাধারণ শিক্ষার গুণগত মান নিশ্চিত করা।
  • অধিদপ্তরের প্রশাসনিক নিয়ন্ত্রণে থাকা বিভিন্ন স্তরের শিক্ষার কারিকুলামের পরিবর্তন সম্পর্কিত চাহিদা নিরূপন এবং তা মূল্যায়ন করা।
  • অধিদপ্তরের আওতাধীন সকল প্রতিষ্ঠানের রাজস্ব ও উন্নয়ন বাজেট প্রণয়ন, হিসাব সংরক্ষণ এবং অডিটের ব্যবস্থা গ্রহণ করা।
  •  অধিদপ্তর ও অধিদপ্তরের আওতাধীন প্রকল্পসমূহের পণ্য, সেবা ও পূর্তকাজের ক্রয় সম্পাদন করা।
  • বিদ্যালয় ও মহাবিদ্যালয়ের শিক্ষকগণের জন্য দেশে ও বিদেশে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা।
  • অধিদপ্তরের আওতাধীন সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণের কর্মী ব্যবস্থাপনা সম্পর্কিত কার্যাদি যথা নিয়োগ, পদায়ন, বদলি, পদোন্নতি, অবসর, বিভাগীয় ব্যবস্থা ইত্যাদি  সম্পাদন করা।
  • শিক্ষা সম্পর্কিত স্বল্প ও দীর্ঘ মেয়াদি প্রকল্প প্রণয়ন ও বাস্তবায়ন করা।
  • সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহে নতুন কোর্স/বিষয় প্রবর্তনের উদ্যোগ গ্রহণ এবং সে লক্ষে অতিরিক্ত পদ সৃষ্টির সকল ব্যবস্থা গ্রহণ করা।
  • বিদ্যালয়/মহাবিদ্যালয়ে ক্রীড়া ও খেলাধুলার আয়োজন করা, শারিরিক শিক্ষার কারিকুলাম উন্নয়নসহ এ শিক্ষা পরিচালনা করা।
  • সিদ্ধান্ত প্রহণের লক্ষ্যে যথাযথ কর্তপক্ষকে শিক্ষা সম্পর্কিত তথ্য সরবরাহ করা।
  • অধিদপ্তরের প্রশাসনিক নিয়ন্ত্রণাধীন কর্মকর্তাগণের বিদেশ ভ্রমণ/প্রশিক্ষণের বিষয়াদি প্রক্রিয়াকরণ।
  • সরকারের বিভিন্ন বিভাগের সাথে লিয়াজো করা।
  • বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কর্মের সমন্বয় করা।
  • শিক্ষক ও কর্মচারীগণের পেনশন, আনুতোষিক ও কল্যাণ তহবিলের অর্থ অনুমোদনের কার্যাদি সম্পন্ন করা।
  • বেসরকারি বিদ্যালয়, মহাবিদ্যালয়, মাদরাসা ও কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসমূহে কর্মরত শিক্ষক/কর্মচারীগণের বাজেট তৈরি এবং বেতন-ভাতাদি প্রদানের কার্য সম্পাদন করা।

Share with :
Facebook Facebook